𝅘𝅥𝅮𝅘𝅥𝅮𝅘𝅥𝅮 লেগেছে লেগেছে লেগেছে অাঅাঅাঅাগুননন… 𝅘𝅥𝅮𝅘𝅥𝅮𝅘𝅥𝅮

—  ইয়েস মিস পুলিপিঠে, বন্দা অাপকে লিয়ে কী করতে পারে?
—  দিদিইইইইইইইই।
—  ওরে বাবা, কী হল? এত ফুর্তি কীসের?
—  ফুচকা খেয়ে এলুম।
—  ফুচকা? বৃষ্টি পড়ছে না?
—  হেহে।
—  হেহে কীসের শুনি?
—  মানে যাকে বলে পড়ছে।
—  হুম। বৃষ্টির মধ্যে ফুচকা। নট ব্যাড।
—  নট ব্যাড? নট ব্যাড!! এর চেয়ে বেটার রেসপন্স নেই? তুমি না অামার দিদি।
—  হ্যাঁ মানে এর চেয়ে বেশি অার কীই বা বলবো? অাকাশ থেকে নোংরা জল পড়ছে ততোধিক নোংরা তেঁতুলজলে, কী না কী জার্ম অাছে কে জানে?
—  বৃষ্টি মোটেও নোংরা নয়। অাই অবজেক্ট।
—  অালবাত নোংরা।
—  অালবাত নয়।
—  তুই বৃষ্টি নামার কতক্ষণের মধ্যে বেরিয়েছিস?
—  ইমিডিয়েট। মানে বাইরেই ছিলুম।
—  অার ফুচকা কখন খেয়েছিস?
—  গলির মোড়েই তো হরির দোকান।
—  দোকান?
—  ওই হল, স্টল।
—  স্টল?
—  স্টল নয়?
—  ঠ্যালাগাড়ি।
—  ওই হল। মোটকথা ফুচকা প্যারাডাইস।
—  তার মানে তোর অাফটার রেন ফার্স্ট ফুচকা পেতে লেগেছে ম্যাক্সিমাম পাঁচ মিনিট?
—  চার। পা চালিয়েছিলাম।
—  কলকাতায় কত পলিউশন জানিস?
—  ফুচকার সঙ্গে পলিউশন?
—  সেই ধুলো ধোঁয়া ইত্যাদি অাকাশে থাকে। বৃষ্টি পড়লে তা ধুয়ে ধুয়ে মাটিতে পড়ে। প্রথম দশ-পনেরো মিনিটের বৃষ্টির জল মুখে দেওয়া অাত্মহত্যারই শামিল।
—  ফুচকার জন্য জান কুরবান। বেহেস্তে রুম বুক করা অাছে।
—  মা কি রেওয়াজ করছে?
—  হ্যাঁ।
—  বেঁচে গেলি। একথা শুনলে তোকে কিলিয়ে কাঁঠাল অার অামাকে পিটিয়ে পোস্তচচ্চড়ি করতো।
—  কাঁঠাল বড় ভাল জিনিস।
—  হতে পারে, কিন্তু অামি পোস্তচচ্চড়ি হতে চাই না।
—  ইতনা টেনশন নেহী লেনে কা। কিস্যু হবে না। অামার ইম্যুনিটি স্ট্রং। তোমার মত প্যানপ্যানে বডি নয় অামার। ইয়ে হ্যায় অ্যাথলীটের শরীর। লোহা হজম হয়ে যাবে।
—  থাক, অার লোহা হজম করে কাজ নাই। তার জন্য লোক অাছে।
—  লোহা হজমের জন্য লোক?
—  হুম। বাদ দে। তো, বৃষ্টিভেজা ফুচকা কেমন লাগলো শুনি।
—  ফুলটুস ডিলাগ্রান্ডিইয়াকইয়াক।
—  শয়তান ভ্যানিশ?
—  একেবারে নাহারগড়।
—  তাও ভালো হাজরা রোড বলিসনি। তেঁতুলজলে লেবু দিয়েছিল?
—  মাথা খারাপ! দিলে অামি হরির হেড ধর থেকে অালাদা করে দেবো না?
—  অার ফুচকাতে দিলে?
—  ঘ্যাচাং। ফুঃ।
—  এইসব থ্রেট টাইম টু টাইম রিনিউ করতে হয় না?
—  মাসে একবার করলেই এনাফ। এখন সিচুয়েশন ওবেলিক্স।
—  মানে পার্মানেন্ট এফেক্ট?
—  নো মোর কলরব, নো মোর এটাসেটালেবুমিক্স। ওনলি পিওর ফুচকা।
—  উইথ বৃষ্টির জল?
—  বৃষ্টির জলে শরীরমন ঠান্ডা, ফুচকার জলে প্রাণ ঠান্ডা।
—  হুম। মানে তুই বলতে চাস লুচিমাংস-গরমস্পঞ্জরসগোল্লার চেয়েও ফুচকা বেটার?
—  লুচিমাংস? সে অতি ভালো জিনিস, নিঃসন্দেহে। গরমস্পঞ্জরসগোল্লাও দিব্যি। বাট ফুচকা? ফুচকা ইজ অাইকনিক। ফুচকা ইজ অা স্টার। ফুচকা ইজ চ্যাম্পিয়ন। ফুচকা ক্যাপিটাল অফ দি ওয়ার্ল্ডে দাঁড়িয়ে একথা সদর্পে ঘোষণা করতে পারি।
—  বাঃ বাঃ বেশ বেশ। তো, ইয়ে, বৃষ্টি ধরেছে, নাকি এখনো চলছে?
—  না ধরলে বাড়ি এসে ফোন করবো?
—  তাও বটে তাও বটে। তা বলছি কী, অাজ দুপুরের মেনু কী?
—  শুনে কী করবে শুনি? দুপুরে তো অাপিসে খাবে। সুকুদি টিফিনে রুটি-তড়কা দেয় নি?
—  রাতে একটু খিচুড়িডিমভাজা হলে সুরুৎ হতো ব্যাপারটা।
—  সে অামি কি জানি? সুকুদিকে জিজ্ঞেস করো।
—  হুম। তুই কর না।
—  ওমনি। রেস্পন্সিবিলিটি ডেলিগেটেড।
—  ফুচকা খাওয়াবো।
—  উঁহু, ভবি উইল নট ভুলাফাই দ্যাট ঈজি। পেট ফুচকায় ভর্তি, শাড়ি বর্ষায়। নির্বাণ মোডে অাছি, ঘুষ উইল নট ওয়ার্ক।
—  ওরে শোন রে, সুকুদির সঙ্গে ব্যাপারটা এখন একটু…
—  …ব্যাপারটা এখন একটু  ক্রিস্টোফারকলোম্বাস হয়ে অাছে, তাই তো?
—  হউমম।
—  রুটি-তড়কা?
—  রুটি-তড়কা।
—  খাওনি?
—  তিনদিন পরপর।
—  সেরেঙ্গেটি ব্যাপার।
—  তাহলেই বোঝ। অাই নিরুপায়।
—  ওক্কে। বলবো। অন ওয়ান কন্ডিশন।
—  সেরেছে। শুনি।
—  রুটি-তড়কাটা অাজ খেতে হবে।
—  ওরে শোন, জরুরি মিটিং অাছে, ট্রিমেন্ডাস ব্যাপারস্যাপার, সময়…
—  …না পেলে রাতে নো খিচুড়িডিমভাজা।
—  এরকম করছিস?
—  এরকমই করছি। পুবের ছাঁটের দিব্যি।
—  তুই একটা…একটা…
—  কিলিম্যাঞ্জারো?
—  টুটাটিসের দিব্যি! একদম তাই।
—  হেহে। জয় বাবা ফুচকানাথ!
______________________________

#সোঘো, দুপুর সাড়ে দেড়টা, ফুচকা খেতে ইচ্ছে করছে, বৃষ্টি নেই যদিও, ২৫ মে, ২০১৬ সাল, ফুচকা ক্যাপিটাল অফ দি ওয়ার্ল্ড।

Advertisements

3 thoughts on “পুলিপিঠের কান্ডকারখানা : বৃষ্টির ফুচকা

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s